Home / Breaking News / যৌথ উদ্যোগে শিল্পপ্রতিষ্ঠান গড়ে তোলা হলে অর্থনীতি আরো সমৃদ্ধ হবে : ড. ফরাস উদ্দিন

যৌথ উদ্যোগে শিল্পপ্রতিষ্ঠান গড়ে তোলা হলে অর্থনীতি আরো সমৃদ্ধ হবে : ড. ফরাস উদ্দিন

ফরাস উদ্দিন

সংবাদ পরিক্রমা: ‘সিলেটে দেশি-বিদেশি বিনিয়োগকারীদের যৌথ উদ্যোগে শিল্পপ্রতিষ্ঠান গড়ে তোলা সম্ভব হলে আমাদের অর্থনীতি আরো সমৃদ্ধ হবে।’ গতকাল শনিবার সিলেট চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির উদ্যোগে আয়োজিত ‘সিলেট অঞ্চলে প্রবাসী বিনিয়োগসংক্রান্ত গবেষণাপত্রের ওপর পর্যালোচনা’ শীর্ষক আলোচনাসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক গভর্নর ড. মোহাম্মদ ফরাসউদ্দিন।

তিনি আরো বলেন, ‘শিল্পায়ন ছাড়া কোনো দেশের টেকসই উন্নয়ন সম্ভব হবে না। ৩৫ বছর আগে আমি যা বলেছিলাম এখনো তা বলছি যে শিল্পায়ন ছাড়া দেশের উন্নয়ন ও অগ্রগতি সম্ভব নয়।’

ড. ফরাসউদ্দিন বলেন, গত ১০ বছরে দেশে অসাধারণ অগ্রগতি হয়েছে। বিভিন্ন আন্তর্জাতিক সূচকে আমরা এশিয়ার মধ্যে এগিয়ে রয়েছি। এ অগ্রগতি বিবেচনা করে এর ধারাবাহিকতা বজায় রাখলে আগামী ২০৩০ সালে বিশ্বের ২৬তম অর্থনৈতিক সমৃদ্ধ দেশ হবে বাংলাদেশ।

সিলেটে বিনিয়োগ এবং শিল্পপ্রতিষ্ঠানের সম্ভাবনার কথা উল্লেখ করে তিনি দেশি-বিদেশি বিনিয়োগকারীদের যৌথ উদ্যোগে শিল্পপ্রতিষ্ঠান স্থাপনের আহ্বান জানান। তিনি বলেন, এখানে শিল্পপ্রতিষ্ঠান নির্মাণের জন্য প্রচুর জমি রয়েছে। এ ছাড়া গ্যাস এবং বিদ্যুৎ সুবিধাও পর্যাপ্ত রয়েছে। সিলেটে দুটি প্রকল্প সিলেট-ঢাকা মহাসড়ক চার লেন এবং ট্রেনের ডাবল লেন বাস্তবায়নে একটু দেরি হচ্ছে উল্লেখ করে ড. ফরাসউদ্দিন বলেন, সিলেট-চট্টগ্রাম হাইওয়ে নির্মাণও জরুরি বলে আমি মনে করি। তিনি গ্যাস সমস্যা সমাধান করাও জরুরি বলে মন্তব্য করেন। সিলেটের শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় ও সিলেট কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষা ও গবেষণায় ব্যাপক ভূমিকা রাখছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, সিলেটে কর্মসংস্থানমূলক প্রকল্প যেমন বস্ত্রশিল্প কারখানা, আসবাবপত্র, আগর, তরল দুগ্ধ, মৎস্য উৎপাদন ও প্রক্রিয়াজাতকরণ, পর্যটন, গ্লাস ও সিরামিক ইন্ডাস্ট্রি সরকারের পরবর্তী পরিকল্পনায় বাস্তবায়ন করা হবে। শেখ হাসিনার নেতৃত্বে এই দেশ থাকলে আমরা আবারও প্রকৃত ‘সোনার বাংলা’ গড়ে তুলে প্রতিটি মানুষের মুখে হাসি ফোটাতে পারব।

সিলেট চেম্বারের সভাপতি খন্দকার সিপার আহমদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে ‘সিলেট অঞ্চলে প্রবাসী বিনিয়োগ : একটি সামগ্রিক পর্যালোচনা’ শীর্ষক প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন শাবিপ্রবির ব্যবসায় প্রশাসন বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. ফজলে এলাহী মোহাম্মদ ফয়সাল। তিনি সিলেট অঞ্চলের অর্থনৈতিক সম্ভাবনা, বিনিয়োগ এবং প্রবাসীদের বিনিয়োগের বাধাগুলো তুলে ধরেন।

সভাপতির বক্তব্যে খন্দকার সিপার আহমদ বলেন, সিলেট অঞ্চল শিল্প ও পর্যটনের জন্য একটি অপার সম্ভাবনাময় স্থান। এ সম্ভাবনাকে কাজে লাগাতে সিলেট চেম্বার বিনিয়োগসংক্রান্ত এ গবেষণা কার্যক্রম পরিচালনার উদ্যোগ গ্রহণ করে। তিনি সিলেট অঞ্চলে বিনিয়োগের জন্য প্রবাসীদের প্রতি আহ্বান জানান। সভায় আলোচনায় অংশ নেন সিলেট ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির ভারপ্রাপ্ত ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর মো. মনির উদ্দিন, মেট্রোপলিটন ইউনিভার্সিটির প্রোভিসি প্রফেসর শিব প্রসাদ সেন, সিলেট সরকারি মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর মুহ. হায়াতুল ইসলাম আকঞ্জি, স্কলার্সহোমের হেড অব একাডেমিক কাউন্সিল ড. কবীর এইচ চৌধুরী প্রমুখ।

print

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

জব্বার

ছুটির দিনেও ভেজাল প্রতিরোধে ভোক্তা অধিকারের হানা, জরিমানা ৪৫ হাজার

সংবাদ পরিক্রমা ডেক্স: রাজধানীর মিরপুর-১ এলাকায় মেয়াদোত্তীর্ণ ও ভেজাল ওষুধ/পণ্য বিক্রি, পণ্যের গায়ের মুল্য তালিকা ...