Home / Breaking News / ওয়ার্ল্ড এডুকেশন কংগ্রেস ‘বেস্ট প্রফেসর’ অ্যাওয়ার্ডে ভূষিত বিশ্বজিৎ চন্দ

ওয়ার্ল্ড এডুকেশন কংগ্রেস ‘বেস্ট প্রফেসর’ অ্যাওয়ার্ডে ভূষিত বিশ্বজিৎ চন্দ

ওয়ার্ল্ড এডুকেশন কংগ্রেস ‘বেস্ট প্রফেসর’ অ্যাওয়ার্ডে ভূষিত, প্রফেসর বিশ্বজিৎ চন্দ রাজশাহী প্রশাসন বিভাগের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি ও প্রফেসর ড. বিশ্বজিৎ চন্দ ‘ওয়ার্ল্ড এডুকেশন কংগ্রেস’, সিএমও এশিয়া ও সিএমও কাউন্সিল কর্তৃক ‘বেস্ট প্রফেসর ইন ল্যান্ড এ্যাডমিনিস্ট্রেশন স্টাডিজ’ এ্যাওয়ার্ডে ভূষিত হয়েছেন।

ঢাকার প্যান প্যাসিফিক সোনারগাঁও হোটেলে ৮ সেপ্টেম্বর রবিবার ‘বাংলাদেশ এডুকেশন লিডারশিপ এ্যাওয়ার্ডস্’ শীর্ষক বর্ণাঢ্য অনুষ্ঠানে ভূমি প্রশাসন শিক্ষাক্ষেত্রে অগ্রণী ভূমিকা ও বিশেষ অনবদ্য অবদানের স্বীকৃতি স্বরূপ তাঁকে এ অ্যাওয়ার্ড প্রদান করা হয়।

যেসব ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠান শিক্ষার উৎকর্ষতার বিভিন্ন পর্যায় অতিক্রম করেছেন আর দৃষ্টান্তমূলক নেতৃত্ব ও রোল মডেল হিসেবে দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন এবং যারা অন্যদের জীবনে পরিবর্তন আনতে ও সমাজ পরিবর্তনে মূল্যবান ভূমিকা রেখে চলেছেন তাঁদেরকে এরকম সর্বোচ্চ সম্মানে ভূষিত করা হয়। অভিজ্ঞ গবেষকদের দ্বারা প্রণীত একটি তালিকা হতে বিশ্বের বিভিন্ন জ্যেষ্ঠ প্রফেশনালদের সমন্বয়ে গঠিত জুরি বোর্ড এই অ্যাওয়ার্ডের জন্য চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেন।

বিশ্বজিৎ চন্দ লন্ডন বিশ্ববিদ্যালয়ের বিখ্যাত স্কুল অব ওরিয়েন্টাল এ্যান্ড আফ্রিকান স্টাডিজ (সোয়াস) হতে পিএইচডি ডিগ্রী লাভ করেন।

তিনি লন্ডনে সোয়াস, লন্ডন স্কুল অব ইকোনমিক্স, কুইন মেরী ইউনিভার্সিটি অব লন্ডন ও বার্লিনে জার্মান ফেডারেল ফরেন একাডেমীতে অতিথি শিক্ষক হিসেবে পাঠদান করেছেন। ইতোপূর্বে তিনি বাংলাদেশ জুডিশিয়াল সার্ভিস কমিশনের সদস্য, রাবি আইন অনুষদের পরপর দুই মেয়াদে ডীন, রাবি সেন্টার অব এক্সেলেন্স ইন টিচিং এ্যান্ড লার্নিং এর পরিচালক ও জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের সিনেটরসহ বিভিন্ন দায়িত্ব সুনামের সাথে পালন করেছেন।

তাঁর পিতা নারায়ণ চন্দ্র চন্দ একজন সাবেক মন্ত্রী এবং খুলনা-৫ এর বর্তমান সংসদ সদস্য এবং মাতা শ্রীমতি ঊষা রাণী চন্দ একজন স্কুল শিক্ষক।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

ফুটপাত দখলমুক্ত করতে বৈঠকে বসছেন ডিএনসিসি মেয়র

ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন এলাকার সড়ক ও ফুটপাত থেকে অবৈধ দখল অপসারণের উদ্যোগ গ্রহণ করেছে ...